ঢাকা ০২:৩৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জিওব্যাগ ডাম্পিংয়ে স্বস্তি, খননে আতঙ্ক

জামালপুরের ইসলামপুরের চরপুটিমারী ইউনিয়নে ব্রহ্মপুত্র নদে জিওব্যাগ ডাম্পিংয়ে স্বস্তি ফিরেছে স্থানীয়দের। অন্য দিকে ব্রহ্মপুত্র নদের ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করার প্রস্তুতির পরিপ্রেক্ষিতে ভাঙন আতঙ্কে সেই খনন কাজ ও বালু উত্তোলন বন্ধে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ইসলামপুর (জামালপুর) : সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার চরপুটিমারী ইউনিয়নের ৪নং চর গ্রাম নদের ভাঙনের কবলে পড়ে অনেক পরিবার গৃহহীন ও ভূমিহীন হয়ে গেছে। বাকি এলাকাটুকুও ভাঙনের ঝুঁকি থাকায় এলাকাবাসী দিশাহারা হয়ে পড়েন। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খানের প্রচেষ্টায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ইমার্জেন্সি প্রকল্পের আওতায় প্রায় ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সোলার কনস্ট্রাকশন ১৩০ মিটার জিওব্যাগ ডাম্পিং কাজ শুরু করে।

স্থানীয় আ. রাজ্জাক মন্ডল, শাহিন মাস্টারসহ একাধিক বাসিন্দা জানান, নদীর ভাঙনে আমরা দিশাহারা হয়ে পড়ছিলাম। ভাঙন রোধে বাকি অংশ রক্ষার জন্য জিওব্যাগ ডাম্পিং কাজ করায় আমরা স্বস্তি ফিরে পেয়েছি। অফিসের নিয়ম মাফিক এখন কাজটি সুষ্ঠুভাবে শেষ হওয়াই আমাদর একমাত্র প্রত্যাশা। জরুরিভাবে গ্রামটি রক্ষার জন্য জিও ব্যাগ ডাম্পিং কাজের উদ্যোগ গ্রহণ করায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন তারা। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সোলার কনস্ট্রাকশনের স্বত্বাধিকারী মোর্শেদুর রহমান খান মাসুম বলেন, সংশ্লিষ্ট দপ্তরের নীতিমালা অনুযায়ী আমরা আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই জিওব্যাগ ডাম্পিং কাজ শেষ করব ইনশাল্লাহ।

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ব্রহ্মপুত্র নদে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করার প্রস্তুতি নিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। এতে ভাঙন আতঙ্কে সেই খনন কাজ ও বালু উত্তোলন বন্ধে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ওই মানববন্ধন করা হয়।

জানা যায়, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের মরিচারচর এলাকাটি দীর্ঘদিন যাবৎ নদীভাঙনের কবলে পড়ে। সেই ভাঙনের মধ্যে দিয়েও মূল নদীর বাইরে নদী খনন ও বালু উত্তোলনের জন্য বসানো হয়েছে শক্তিশালী ড্রেজার মেশিন। যে মেশিন চালু হলে ভাঙনে বিলীন হয়ে যেতে পারে মরিচারচর দপ্তরপাড়ার প্রায় ৭০০ পরিবার। তাই সেই ড্রেজার মেশিন দিয়ে খনন কাজ ও বালু উত্তোলন বন্ধের দাবিতে সোমবার দুপুরে মানববন্ধন করে এলাকাবাসী। এছাড়াও বিষয়টি নিয়ে রবিবার এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষরে কাজ বন্ধের দাবিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি অভিযোগ করেন স্থানীয়রা।

এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী দিদার আলম বলেন, আমরা নদী খননের জন্য কেবল ড্রেজার মেশিন বসিয়েছি। এলাকাবাসীসহ সবার সঙ্গে আলোচনা করে পরে কাজ শুরু করা হবে। এলাকাবাসীর ক্ষতি হলে বা ভাঙন হলে তাহলে বিষয়টি আমরা দেখব। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা. হাফিজা জেসমিন বলেন, আমার কাছে স্থানীয়রা একটি অভিযোগ দিয়েছে। সেই অভিযোগের পর পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। যদিও বালু উত্তোলনের জন্য ড্রেজার মেশিন বসানো হয়েছে কিন্তু বালু উত্তোলন এখনো হচ্ছে না। এলাকাবাসীর সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী কাজ করা হবে।

Tag :
জনপ্রিয়

গাজীপুর ঐতিহাসিক রাজবাড়ী মাঠের অমর একুশে বইমেলার সমাপনী অনুষ্ঠান

জিওব্যাগ ডাম্পিংয়ে স্বস্তি, খননে আতঙ্ক

প্রকাশের সময় : ০৯:১০:০৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২

জামালপুরের ইসলামপুরের চরপুটিমারী ইউনিয়নে ব্রহ্মপুত্র নদে জিওব্যাগ ডাম্পিংয়ে স্বস্তি ফিরেছে স্থানীয়দের। অন্য দিকে ব্রহ্মপুত্র নদের ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করার প্রস্তুতির পরিপ্রেক্ষিতে ভাঙন আতঙ্কে সেই খনন কাজ ও বালু উত্তোলন বন্ধে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

ইসলামপুর (জামালপুর) : সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার চরপুটিমারী ইউনিয়নের ৪নং চর গ্রাম নদের ভাঙনের কবলে পড়ে অনেক পরিবার গৃহহীন ও ভূমিহীন হয়ে গেছে। বাকি এলাকাটুকুও ভাঙনের ঝুঁকি থাকায় এলাকাবাসী দিশাহারা হয়ে পড়েন। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খানের প্রচেষ্টায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ইমার্জেন্সি প্রকল্পের আওতায় প্রায় ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সোলার কনস্ট্রাকশন ১৩০ মিটার জিওব্যাগ ডাম্পিং কাজ শুরু করে।

স্থানীয় আ. রাজ্জাক মন্ডল, শাহিন মাস্টারসহ একাধিক বাসিন্দা জানান, নদীর ভাঙনে আমরা দিশাহারা হয়ে পড়ছিলাম। ভাঙন রোধে বাকি অংশ রক্ষার জন্য জিওব্যাগ ডাম্পিং কাজ করায় আমরা স্বস্তি ফিরে পেয়েছি। অফিসের নিয়ম মাফিক এখন কাজটি সুষ্ঠুভাবে শেষ হওয়াই আমাদর একমাত্র প্রত্যাশা। জরুরিভাবে গ্রামটি রক্ষার জন্য জিও ব্যাগ ডাম্পিং কাজের উদ্যোগ গ্রহণ করায় ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন তারা। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সোলার কনস্ট্রাকশনের স্বত্বাধিকারী মোর্শেদুর রহমান খান মাসুম বলেন, সংশ্লিষ্ট দপ্তরের নীতিমালা অনুযায়ী আমরা আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই জিওব্যাগ ডাম্পিং কাজ শেষ করব ইনশাল্লাহ।

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ব্রহ্মপুত্র নদে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করার প্রস্তুতি নিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। এতে ভাঙন আতঙ্কে সেই খনন কাজ ও বালু উত্তোলন বন্ধে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ওই মানববন্ধন করা হয়।

জানা যায়, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার উচাখিলা ইউনিয়নের মরিচারচর এলাকাটি দীর্ঘদিন যাবৎ নদীভাঙনের কবলে পড়ে। সেই ভাঙনের মধ্যে দিয়েও মূল নদীর বাইরে নদী খনন ও বালু উত্তোলনের জন্য বসানো হয়েছে শক্তিশালী ড্রেজার মেশিন। যে মেশিন চালু হলে ভাঙনে বিলীন হয়ে যেতে পারে মরিচারচর দপ্তরপাড়ার প্রায় ৭০০ পরিবার। তাই সেই ড্রেজার মেশিন দিয়ে খনন কাজ ও বালু উত্তোলন বন্ধের দাবিতে সোমবার দুপুরে মানববন্ধন করে এলাকাবাসী। এছাড়াও বিষয়টি নিয়ে রবিবার এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষরে কাজ বন্ধের দাবিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি অভিযোগ করেন স্থানীয়রা।

এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী দিদার আলম বলেন, আমরা নদী খননের জন্য কেবল ড্রেজার মেশিন বসিয়েছি। এলাকাবাসীসহ সবার সঙ্গে আলোচনা করে পরে কাজ শুরু করা হবে। এলাকাবাসীর ক্ষতি হলে বা ভাঙন হলে তাহলে বিষয়টি আমরা দেখব। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসা. হাফিজা জেসমিন বলেন, আমার কাছে স্থানীয়রা একটি অভিযোগ দিয়েছে। সেই অভিযোগের পর পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। যদিও বালু উত্তোলনের জন্য ড্রেজার মেশিন বসানো হয়েছে কিন্তু বালু উত্তোলন এখনো হচ্ছে না। এলাকাবাসীর সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী কাজ করা হবে।