শিরোনাম
শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪
শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪

বাড়ছে ‘স্লিপ ডিভোর্স’ এর প্রবণতা

আলোকিত সকাল প্রতিবেদক
প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ এপ্রিল 2০২4 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০২ এপ্রিল 2০২4 | অনলাইন সংস্করণ
Image

বিশ্বব্যাপী জীবন যাপনের ব্যয় বেড়েছে বহু গুন, এই কারণেই পরিবারের সবাইকে আয় করতে হচ্ছে। এর ফলে মানুষের কাছে জীবন মানেই যান্ত্রিকতা আর কর্মই। তবে এর মধ্যে পারিবারিক বন্ধন টিকিয়ে রাখতে গিয়ে তৈরি হচ্ছে নানান সমস্যা। যে সমস্যার অন্যতম একটি হলো ‘স্লিপ ডিভোর্স’। প্রশ্ন হলো- স্লিপ ডিভোর্স কী?


সামাজিক ও ধর্মীয়ভাবে নারী-পুরুষের বন্ধন হলো বিবাহ। তবে অনেক সময় দেখা যায় দাম্পত্য অশান্তির কারণে বিচ্ছেদ হয় দম্পতিদের। যার নাম বিবাহ বিচ্ছেদ বা ডিভোর্স। কিন্তু এমনও অনেক দম্পতি রয়েছে যাদের জন্য বিবাহবিচ্ছেদের মতো সিদ্ধান্ত নেয়া সহজ নয়। এর ফলে গত কয়েক বছরে বিভিন্ন জায়গায় ‘স্লিপ ডিভোর্স’-এর প্রবণতা বেড়ে গেছে।



বিবাহ বিচ্ছেদ হলে স্বামী-স্ত্রী দুজনের মধ্যে কোনো সম্পর্ক থাকবে না, দুজন আলাদাভাবে নিজের জীবন শুরু করবে। কিন্তু ‘স্লিপ ডিভোর্স’ হল স্বামী-স্ত্রীরা একই ছাদের তলায় বসবাস করবে কিন্তু একসঙ্গে ঘুমাবে না।



মূলত বর্তমান সময়ে এমন অনেক দম্পতি আছে যারা স্বামী-স্ত্রী দুজনই কর্মজীবী। রয়েছে রোস্টার ও রুটিন মাফিক ডিউটির ঝক্কি-ঝামেলা। কখনো কখনো দুজনের ভিন্ন ভিন্ন টাইমে ডিউটি। ব্যস্ত জীবনে কাজের প্রয়োজনে শান্তির ঘুম শরীরকে সুস্থ রাখার পাশাপাশি মন ও মস্তিষ্ককে শান্ত রাখার জন্য খুবই জরুরি। কিন্তু বৈবাহিক জীবনে অশান্তি থাকার কারণে সঙ্গীর সঙ্গে ঘুমানোর ফলে ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে।



এমন পরিস্থিতিতে, দম্পতিরা দুজন দুটো ভিন্ন ঘরে ঘুমানোর সিদ্ধান্ত নেয়, অর্থাৎ একসঙ্গে থাকার পরও এক সঙ্গে না থাকার সিদ্ধান্ত। মর্নিং ও ইভিনিং শিফটের ঝামেলা থাকলে দুজনের ভিন্ন ভিন্ন সময়ে ঘুমানো লাগে এবং ভিন্ন সময়ে ওঠা লাগে। যা ঘুমানোর তারতম্য তৈরি করে।



আর এ কারণে স্বাধীনভাবে ঘুমানো সম্ভব হয় স্লিপ ডিভোর্সের ফলে। তবে স্লিপ ডিভোর্সকে জীবনব্যাপী প্রক্রিয়া না করে শুধু বিকল্প প্রক্রিয়া হিসেবে ব্যবহার করা উচিত, তাহলে সম্পর্কে ক্ষতি কম হয়। অন্তত সম্পর্ক ঠিক করার চেষ্টা করার জন্য সাপ্তাহিক ছুটির দিনে একসঙ্গে ঘুমানোর পরিকল্পনা করা উচিত, এর ফলে শারীরিক দূরত্বের সঙ্গে মানসিক দূরত্বও কমতে শুরু করে। পারিবারিক বন্ধন ও সুস্বাস্থ্যের জন্য হলেও স্বামী-স্ত্রীর এক সঙ্গে ঘুমানো দরকার।


আরও খবর




আজমিরীগঞ্জে মাঠে গরুর ঘাস খাওয়া নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নারী পুরুষসহ আহত ৪০

সোনাইমুড়ীতে ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

বিপিডিএ তে কেন সদস্য হবেন, জেনে নিন বিস্তারিত। সারা দেশে বিপিডিএ তে সদস্য সংগ্রহ চলছে

নরসিংদীতে বাস ও মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত -৩

ট্রাফিক তেজগাঁও বিভাগের ব্যবস্থাপনার প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রী

ঈদের দ্বিতীয় দিনে কক্সবাজারে পর্যটকের ঢল

পহেলা বৈশাখের প্রভাব ইলিশের গায়ে

আড়াইশ ছাড়িয়েছে ব্রয়লার, বাড়তি দাম শাক-সবজির

দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর জায়গা এদেশের মাটিতে হবে না: হানিফ

সদরঘাটের দুর্ঘটনায় ৫ জন রিমান্ডে

আ.লীগ যে ককটেল পার্টিতে বিশ্বাস করে, সেটিতে আমরা করি না : রিজভী

দেশের বিভিন্ন অংশে তাপপ্রবাহ, সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি

রির্জাভ ছাড়াল ২০ বিলিয়ন ডলার

সাঙ্গু নদীতে ফুল ভাসিয়ে বান্দরবানে বিঝু ও বিষু উৎসব শুরু

নোয়াখালীতে ট্রাক চাপায় তরুণের মৃত্যু

স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া চলাকালে স্বামীর মৃত্যু-স্ত্রী আটক

নোয়াখালীতে অর্ধগলিত অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার

বান্দরবানে যৌথ বাহিনীর অভিযানে এক নারীসহ আরো ৩ জনকে আটক

মুরাদনগরে মানবতার ফেরিওয়ালা উপজেলা চেয়ারম্যান ড. কিশোর

বান্দরবানে শুরু হচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ৩ দিনব্যাপী গঙ্গাপূজা ও বারুণী স্নান

হোমনায় যুবলীগ নেতা ছাদেক বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ গ্রামবাসী

দুর্গাপুরে বিভিন্ন অপকর্মের বিচারের দাবিতে উপজেলা ছাত্রলীগের সংবাদ সম্মেলন

তৌহিদুজ্জামানের উদ্যোগে অর্ধশত পরিবারে ইফতার সামগ্রী বিতরণ

ইফতার পার্টিতে যাওয়ার পথে প্রবাসী তরুণের মৃত্যু

সোনার বাংলা এসএসসি ২০০০ ব্যাচের উদ্যোগে ইফতার ও দোয়া মাহফিল

অবসরপ্রাপ্ত সৈনিক কল্যাণ সমবায় সমিতির উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন ও ইফতার মাহফিল

মৌলভীবাজারে একাধিক চুরির মামলার পলাতক আসামী গ্রেফতার

আসন্ন বরুড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে মতবিনিময় সভা

বান্দরবান থানচি ব্যাংক ডাকাতির ঘটনায় এক নারীসহ আটক ৪


এই সম্পর্কিত আরও খবর

ট্রাফিক তেজগাঁও বিভাগের ব্যবস্থাপনার প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রী

দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানালেন প্রধানমন্ত্রী

সদরঘাটের দুর্ঘটনায় ৫ জন রিমান্ডে

দেশের বিভিন্ন অংশে তাপপ্রবাহ, সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি

নীলফামারী জেলার সব্দিগঞ্জ মাঠে সর্ববৃহৎ ঈদের নামাজ

সৌদির সঙ্গে মিল রেখে নোয়াখালীর ৪ গ্রামে ঈদ উদযাপন

নন্দীগ্রামে শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে ঈদ ও নববর্ষের কেনাকাটা

ঈদুল ফিতরের ছুটিতে ফাঁকা হয়ে যাচ্ছে চট্টগ্রাম নগর ছাড়ছেন ঘরমুখী মানুষ

ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ঈদযাত্রায় ট্রেনে নাশকতার কোনো তথ্য নেই: র‌্যাব